মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিঃ

করোনার প্রাদুর্ভাবের শুরুতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মতে জেলায় ও উপজেলায় জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে করোনা প্রতিরোধে নিয়মিত একাধিক মিটিং করা হয়েছে। বিদেশ প্রত্যাগত ও দেশের অভ্যন্তরের আক্রান্ত এলাকাগুলো থেকে আগত ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টাইনে অবস্থান নিশ্চিত করতে মোবাইল কোর্ট অভিযানের পাশাপাশি পুলিশ ও নৌবাহিনী টহল দিচ্ছে এবং মাইকিং করে জনসাধারণকে রাস্তাঘাট ও দোকানপাটে অযথা ভিড় না করে বাসায় অবস্থান করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।কোভিড-১৯ এর জন্য জেলা ও উপজেলায় সরকারি ৭টি ও বেসরকারি ১৫টি সহ মোট ২২টি চিকিৎসাকেন্দ্র যাতে বেড সংখ্যা ৪৭০টি। জেলায় মোট ৭৫ জন ডাক্তার, ১২১ জন নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মী কর্মরত আছেন। বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের  ৫৮টি বেড ও আইসোলেশনের জন্য ৪২টি বেডের ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়াও চলাচলের সুবিধার জন্য ১ টি মাইক্রোবাস এবং তাৎক্ষণিকভাবে আক্রান্ত রোগীদের বহন ও  স্যাম্পল সংগ্রহের জন্য সার্বক্ষণিক ২টি অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বরগুনা জেলার প্রথম করোনা আক্রান্ত প্রথম ব্যক্তি ,জি এম দেলোয়ার,‌ যিনি ১০ এপ্রিল মারা যান । ১৮ এপ্রিল, শনিবার দুপুর ১২টা থেকে বরগুনা জেলা অবরুদ্ধ(লকডাউন) ঘোষণা করা হয়েছে।

 

ক্রমিক নং বিবরণ পূর্বদিন পর্যন্ত সংখ্যা বর্তমান তারিখে সংখ্যা মোট সংখায় মন্তব্য
০১ আক্রান্ত ৯০২ ০২ ৯০৪  
০২ বাড়িতে কোয়ারেন্টাইন ৩৩২৩ ০০ ৩৩২৩  
০৩ প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন ৭৮৬ ০০ ৭৮৬  
০৪ আইসোলেশন ৯০২ ০২ ৯০৪ ৮৫ জন বাড়িতে অবস্থানরত
০৫ কোয়ারেন্টাইন/ আইসোলেশন থেকে ছাড়প্রাপ্ত ৪১০৯ ০০ ৪১০৯  
০৬ আরোগ্যলাভকারী ৭৯২ ০০ ৭৯২  
০৭ মৃত্যুবরণকারী ২০    
০৮ ১ মার্চ ২০২০ থেকে বিদেশ থেকে প্রত্যাগত ৯৮০ ৯৮০  
০৯ ঠিকানা ও অবস্থান চিহ্নিত বিদেশ প্রত্যাগত ব্যক্তি ৮৮০ ৮৮০  

 

কোভিড ১৯ রিপোর্ট:

প্রেরিত নমুনা প্রাপ্ত ফলাফল কোভিড পজেটিভ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন  মৃত্যুবরণকারী
৫০২২ ৫০০৫ ৮৯২ ০৪ ২০৮ ২০

 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter